WBSEDCL Monthly Bill: আর তিন মাসের বিদ্যুত বিল একসাথে নয়, এবার বিল আসবে মাসে মাসে

WBSEDCL Monthly Bill

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ইতিমধ্যে অভিযোগ করেছেন যে, বেসরকারী পাওয়ার ইউটিলিটি CESC তার সরকারকে না জানিয়েই শুল্ক বাড়িয়েছে। কলকাতা এবং হাওড়ায় বিদ্যুৎ সরবরাহকারী CESC-এর আধিকারিকরা অবশ্য দাবি করেছেন যে, কোনও শুল্ক পরিবর্তন আপাতত হয়নি। তবে জুন মাসে জ্বালানি খরচ সামঞ্জস্য করা হয়েছিল।

আরও পড়ুন: Nabanna Scholarship 2024: ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য বিরাট খুশির খবর, এবার সরকার থেকে দেবে নগদ ১০,০০০ টাকা

CESC কর্মকর্তারা বলেছেন যে, এপ্রিলের জ্বালানি সমন্বয় জুনের বিলের ৫.৭% বৃদ্ধিকে প্রভাবিত করেছে। তারা বলেছেন যে, এটি জ্বালানীর খরচ সামঞ্জস্য করার ইউটিলিটিগুলির জন্য নির্ধারিত একটি নিয়ম। মোট গড় শুল্ক প্রতি ইউনিট ৭.৭৩ টাকাই রয়ে গেছে।

তবে এপ্রিল থেকে সল্টলেক এবং নিউ টাউনের বাড়িগুলি তিন মাসে একবারের পরিবর্তে কলকাতার গ্রাহকদের মতো প্রতি মাসে বিদ্যুৎ বিল পাওয়া শুরু করেছে। রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন ডিস্ট্রিবিউশন ইউটিলিটি ওয়েস্ট বেঙ্গল স্টেট ইলেকট্রিসিটি ডিস্ট্রিবিউশন কো লিমিটেড ((WBSEDCL)) ১ বছরের মধ্যে ত্রৈমাসিক চক্র থেকে একটি মাসিক চক্রে দুটি স্যাটেলাইট শহরে সমস্ত গার্হস্থ্য গ্রাহকদের বিলিং স্থানান্তর করার আশা করছে৷

তবে এই প্রতি মাসে বিলেল ব্যবস্থা শুধুমাত্র গুটি কয়েক এলাকাতেই চালু হয়েছে। এর ফলে ভুগতে হচ্ছে অগণিত সাধারণ মানুষকে। যাদের এখনও পর্যন্ত তিন মাসের বিল একসাথে মেটাতে হচ্ছে। দক্ষিণবঙ্গে বর্ষা ঢুকলেও অস্বস্তিকর গরম বিন্দুমাত্র কমেনি। যার ফলে এখনো প্রতি ঘরে ঘরে ফ্যান থেকে শুরু করে এয়ারকন্ডিশনার, এয়ার কুলার সবই চালানো হচ্ছে। কিন্তু এসবের অলখেই বেড়ে যাচ্ছে বিদ্যুতের বিল।

আরও পড়ুন: Work From Home Job: বাড়ি বসেই করুন মোটা টাকা উপার্জন, তাও আবার কেন্দ্রীয় সরকারের অধীনে

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবার সরব হয়েছেন বিদ্যুৎ বিল নিয়ে। তিনি CESC-এর মতই এবার নিয়ম চালু করতে চলেছেন। এবার থেকে প্রতিটি বাড়িতে প্রতি মাসের বিদ্যুৎ বিল আসবে। যার ফলে সাধারণ মানুষদের একটু হলেও সুবিধা হবে। প্রতি মাস হিসেবে ইলেকট্রিক মিটারে যতটুকু দেখা যাবে ঠিক ততটুকু বিদ্যুতের ওপরেই বিল নির্ধারিত হবে।

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url